Tuesday 1st December 2020
আজ মঙ্গলবার | ১লা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

করোনা আক্রান্ত স্থানীয় ও রোহিঙ্গাদের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে-টেকনাফে ২০০ শয্যার আইসোলেশন সেন্টার ও বিশেষায়িত হাসপাতাল উদ্বোধন

কাইছার পারভেজ চৌধুরী, টেকনাফ থেকে

সোমবার, ৩১ আগস্ট ২০২০ | ৭:৪৭ অপরাহ্ণ

করোনা আক্রান্ত স্থানীয় ও রোহিঙ্গাদের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে-টেকনাফে ২০০ শয্যার আইসোলেশন সেন্টার ও বিশেষায়িত হাসপাতাল উদ্বোধন
Spread the love

টেকনাফে করোনা আক্রান্ত স্থানীয় ও রোহিঙ্গাদের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে আইসিডিডিআরবি’র ২০০ শয্যার আইসোলেশন সেন্টার ও বিশেষায়িত হাসপাতাল উদ্বোধন করা হয়েছে।
সোমবার (৩১শে আগস্ট) সকাল ১১টার দিকে টেকনাফ উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম সাইফের সভাপতিত্বে হাসপাতালটি উদ্বোধন করেন টেকনাফ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল আলম।
টেকনাফ উপজেলা পরিষদ ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মধ্যখানে এবং টেকনাফ-কক্সবাজার আঞ্চলিক মহাসড়কের পশ্চিমে অবস্থিত আইসিডিডিআরবি’র ডায়রিয়া সেন্টার কমপ্লেক্সে এই হাসপাতালটি তৈরি করা হয়েছে। সামাজিক ও শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে, স্বাস্থ্যবিধি মেনে হাসপাতালটির কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়। অস্ট্রেলিয়া, জার্মান, সুইডেন, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র সরকার এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও বিশ্ব ব্যাংকের আর্থিক সহযোগিতায় এই বৃৃহৎ আকারের আধুনিক করোনা আইসোলেশন হাসপাতালটি নির্মাণ করা হয়। গত মে মাসে এই হাসপাতালের নির্মাণ কাজ শুরু হয়। দীর্ঘ চার মাস পর নির্মাণ কাজ শেষে এই হাসপাতালটি উদ্বোধন করা হয়।
আইসিডিডিআরবি’র কমিউনিকেশন সূত্রে জানা যায়, এই চিকিৎসা কেন্দ্রে টেকনাফ উপজেলার স্থানীয় ও রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীতে করোনা শনাক্ত ও গুরুতর অসুস্থ রোগীদের অক্সিজেন থেরাপিসহ চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হবে। প্রতিদিন ২৪ ঘণ্টা খোলা থাকবে। করোনা যুদ্ধে অগ্রভাগে থাকা প্রায় তিনশ জনের অধিক উচ্চ প্রশিক্ষিত ও নিবেদিত চিকিৎসক, নার্স, রোগীর পরিচর্যাকারী, ল্যাবরেটরি টেকনিশিয়ান, ফার্মাসিস্ট ও পরিচ্ছন্নতাকর্মী দ্বারা এই চিকিৎসা কেন্দ্র পরিচালিত হবে। যেসব গুরুতর রোগীর শ্বাসপ্রশ্বাসের জন্য যান্ত্রিক ভেন্টিলেশনের প্রয়োজন হবে, তাদের প্র্াথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর জেলা হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রগুলোতে পাঠানো হবে।
ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধনী অনুষ্টানে অংশগ্রহন করেন আইসিডিডিআরবি’র নির্বাহি পরিচালক প্রফেসর জন ডি ক্লেমেন্স ও আইসিডিডিআরবি’র ভারপ্রাপ্ত নির্বাহি পরিচালক ডঃ তাহমিদ আহমেদ।
এছাড়া অনুষ্ঠানে জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফের বাংলাদেশ প্রতিনিধি তমু হযুমি, আইসিডিডিআরবি’র সিনিয়র প্রোগ্রাম কো-অর্ডিনেটর ডাঃ জিয়াউল ইসলাম, জাতিসংঘের স্বাস্থ্য বিষয়ক সংস্থা ডব্লিউ,এইচ,ও’র (হো) ডাঃ মুকেশ প্রজাপতি, ইউএনএফপি এর রোসেলিডা রাফায়েল, ইউনিসেফের এজাতুল্লাহ মাজিদ, কক্সবাজার শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনারের প্রতিনিধি ডাঃ আবু তোহা এম আর এইচ ভূঁইয়া, আইসিডিডিআরবি’র প্রিন্সিপল ইনভেস্টিগেটর ডাঃ মোঃ মুনিরুল ইসলাম, টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ টিটু চন্দ্র শীল, টেকনাফ প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি জাবেদ ইকবাল চৌধুুরীসহ আইসিডিডিআরবি’র বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা, কর্মচারী ও সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

-Advertisement-
Recent  
Popular  

Our Facebook Page

-Advertisement-
-Advertisement-